SS TV live
SS News
wb_sunny

এই মুহুর্তে

সোনারগাঁয়ে বকেয়া বেতনের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ।

 



 নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার কাচঁপুর এলাকায় ওপেক্স অ্যান্ড সিনহা গার্মেন্টেসে বকেয়া বেতনসহ সাত দফা দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে কয়েক হাজার শ্রমিক। অবরোধের কারণে কাঁচপুর সেতু থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ব্যবহার করে যে পণ্যবাহী যানবাহন যাতায়াত করছে, সে যানবাহনের কারণে সেতুর দুই পাশে ১০কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

 গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে কাজে যোগ না দিয়ে শ্রমিকরা কাজ বন্ধ রেখে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে। খবর পেয়ে শ্রমিকদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে নিতে সোনারগাঁ থানা পুলিশ, শিল্প পুলিশ কাচঁপুর হাইওয়ে থানা পুলিশ শ্রমিকদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে যান চলাচলের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ওপেক্স অ্যান্ড সিনহা গ্রæপের শ্রমিকরা জানান, প্রতি মাসের সাত তারিখের মধ্যে শ্রমিকদের বেতন ভাতা পরিশোধ করার কথা। কিন্তু অনেক শ্রমিকের প্রায় তিন মাসের বেতন বকেয়া থেকে গেছে। এছাড়া শ্রমিকদের অবসর সার্ভিসের টাকা, মাতৃত্বকালীন ছুটি, বাৎসরিক ছুটির টাকা, মৃত্যুজনিত এককালীন বীমার টাকা পরিশোধ করা হচ্ছে না। এসব বিষয় নিয়ে শ্রমিকরা মালিক পক্ষের লোকজনের সাথে কথা বলতে গেলে তারা কারাখানা লে-অফ ঘোষণা করার ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন। শ্রমিকরা আরো জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার আমাদের দাবি পুরনের কথা ছিল। আমরা কারখানার প্রধান ফটকে গিয়ে দেখি নোটিশে লেখা রয়েছে এক মাসের বেতন ও একটি বেতন বোনাস ছাড়া কিছুই দেওয়া হবে না। তাই আমরা মহাসড়ক অবরোধ করে আন্দোলনে নেমেছি। আমাদের দাবি পুরন না হলে মহাসড়ক ছাড়ব না। পরিচালক তারেক রহমান কয়েকবার দাবি পূরনের আশ্বাস দিয়েও তালবাহানা শুরু করেছে। শ্রমিকদের আন্দোলনের বিষয়ে ওপেক্স অ্যান্ড সিনহা গার্মেন্টের পরিচালক তারেক রহমান জানান, শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলে তাদের দাবি দাওয়া সর্ম্পকে যৌক্তিক দাবিগুলো পুরণ করা হবে। কাচঁপুর শিল্প পুলিশের ইনচার্জ নুরুল ইসলাম জানান, শ্রমিকদের দাবি নিয়ে মালিক পক্ষের সঙ্গে কথা হয়েছে। তাদের দাবি পুরনের আশ্বাস দিয়ে মহাসড়ক থেকে সরিয়ে পন্যবাহী যান চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

Tags

সাবসক্রাইব করুন!

সবার আগে নিউজ পেতে সাবসক্রাইব করুন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন