SS TV live
SS TV
wb_sunny

এই মুহুর্তে

সোনারগাঁয়ে সরকারী নির্দেশনা অমান্য করে চালিয়ে যাচ্ছেন স্কুলের ক্লাস

 



সোনারগাঁ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁয়ে নোয়াগাঁও ইউনিয়নের চরকামালদি এলাকায় এম এ মান্নান কিন্ডারগার্টেন এন্ড হাই স্কুল নামের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরকারী নির্দেশনা অমান্য করে ক্লাস চালিয়ে যাচ্ছেন শিক্ষকরা।

শিক্ষার্থীদের শারিরিক দূরত্ব বজায় না রেখেই গাদাগাদি করে বসিয়ে ক্লাস নিচ্ছেন। শিক্ষার্থীদের স্কুলে এনে ক্লাস করে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ফেলে দিচ্ছে বলেও অভিযোগ এলাকাবাসির।

জানা যায়, উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের চরকামালদী এলাকায় এম এ মান্নান কিন্ডারগার্টেন এন্ড হাই স্কুল নামের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দীর্ঘদিন ধরে করোনার মধ্যেও নিয়মিত ক্লাস নেয়া হচ্ছে। তাদের দাবি ওই এলাকার কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়নি। এছাড়াও সরকারিভাবে তাদের কোন প্রকার সহযোগিতা দেওয়া হয়নি। তাদের সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

তাই এ কিন্ডারগার্টেন খোলা রেখে নিয়মিত ক্লাস নিচ্ছেন। সরেজমিনে আজ মঙ্গলবার (২৯ জুন) সকাল ১০ টার দিকে ওই স্কুলে গিয়ে দেখা যায়, শ্রেণী কক্ষে স্কুলের পোষাক ছাড়া সাধারণ পোষাকে শিক্ষার্থীদের গাদাগাদি করে বসিয়ে ক্লাস নেয়া হচ্ছে। সাংবাদিকরা ছবি তুলতে গেলে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা এদিক ওদিক ছোটাছুটি করে পালিয়ে যায়। চরকামালদি গ্রামের অভিভাবক আলমগীর হোসেন বলেন, সারা দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করোনার মধ্যে বন্ধ রয়েছে। কিন্তু এম এ মান্নান কিন্ডারগার্টেন ক্লাস নিচ্ছে।

অভিভাবক সুফিয়া বেগম বলেন, এম এ মান্নান কিন্ডারগার্টেনের প্রধান শিক্ষক হারুন অর রশিদ ও সহকারী শিক্ষক সুজন মিয়া বাড়ি বাড়ি গিয়ে আমাদের ছেলে মেয়েদের ডেকে এনে ক্লাস নিচ্ছেন। এম এ মান্নান কিন্ডারগার্টেনের প্রধান শিক্ষক হারুন অর রশিদ বলেন, সরকারীভাবে আমাদের কোন বেতন দেওয়া হয় না। আমাদের সংসার আছে। আমরা চলবো কি করে। তাই স্কুলে এ্যাসাইনমেন্টের জন্য শিক্ষার্থী আনা হয়। তবে ক্লাস নেওয়া হয় না।

সোনারগাঁ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, করোনার মধ্যে স্কুল বন্ধ। ক্লাস নেওয়ার কোন সুযোগ নেই। কেউ ক্লাস নিলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে সরকারীভাবে শিক্ষার্থীদের এ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে মূল্যায়ণ করা যেতে পারে। সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আতিকুল ইসলাম বলেন, সরকারী নির্দেশনা অমান্য করে যদি ক্লাস নিয়ে থাকে তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


Tags

সাবসক্রাইব করুন!

সবার আগে নিউজ পেতে সাবসক্রাইব করুন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন