SS TV live
youtube
wb_sunny

এই মুহুর্তে

সোনারগাঁয়ে পরকীয়া প্রেমের টানে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে প্রতারক রানী উধাও

 


স্টাফ রিপোর্টারঃ

পরকীয়ার টানে স্বামী ডালিমের সাথে কোন প্রকার বিবাহ বিচ্ছেদ (ডিভোর্স) না দিয়েই সুজন মিয়া নামে অন্য এক পুরুষের সাথে অবস্থান করছেন মনিমালা আক্তার রানী এবং স্বামীর ঘর থেকে নগদ টাকা ও স্বর্নালংকার নিয়ে পালিয়ে গেছেন রানী এমন অভিযোগ এনে স্বামী ডালিম (৩৮) বাদী হয়ে ১. মনিমালা আক্তার রানী (২৮) পিতাঃ মমিন আলী, ২. মাজেদা বেগম (৫০) স্বামীঃ মমিন আলী, সাং-সোনাপুর, কাঁচপুর, ৩. সুজন মিয়া (২৮) পিতাঃ আঃ রব, সাং-নজিরপুর বড়বাড়ি, সোনারগাঁকে বিবাদী করে সোনারগাঁ থানায় বুধবার বিকেলে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ অনুযায়ী ভূক্তভোগী ডালিম ঘটনার বিবরণে সাংবাদিকদের জানান, ১ বছর আগে ইসলামী শরীয়াহর ভিত্তিতে রানীর সাথে আমার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই বিবাদী রানী তার খেয়াল খুশিমত চলতে থাকে। আমার অজান্তে সে পর পুরুষের সাথে পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে তুলে। গত ১০/০৪/২১ইং তারিখ বিকেলে আমার ঘর থেকে নগদ টাকা ও স্বর্নালংকার নিয়ে পরকীয়া প্রেমিক সুজনের সাথে পালিয়ে যায়। পরক্ষণে জানতে পারি তারা সুজনের বাড়িতে অবস্থান করছে। বিবাদী মাজেদা বেগম ও সুজন মিয়ার সাথে এ বিষয়ে যোগাযোগ করলে তারা আমাকে গালমন্দ করে এবং আমাকে ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান করে। রানী সে একটি খারাপ প্রকৃতির ও চরিত্রহীন মেয়ে। এ পর্যন্ত কয়েকজন পুরুষের সাথে সে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়েছে। আমাকে ডিভোর্স না দিয়েই সে অন্যের সাথে ঘর সংসার করছে। টাকার লোভে তার মা মাজেদা বেগমের ইন্ধনে সে অপকর্ম করে বেড়াচ্ছে। আমাকে মারার জন্য গুন্ডা পর্যন্ত ভাড়া করেছে। আমি এ বিষয়ে আইনের শরনাপন্ন হয়েছি এবং তাদের সুষ্ঠু বিচার চাই। যাতে আর কেউ এরকম মানুষের জীবন ও সংসার নিয়ে খেলা করতে না পারে।


Tags

সাবসক্রাইব করুন!

সবার আগে নিউজ পেতে সাবসক্রাইব করুন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন