SS TV live
SS News
wb_sunny

এই মুহুর্তে

সোনারগাঁয়ে শিশু সোয়াইব হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি, রায়ে সন্তুষ্ট নয় সোয়াইবের পরিবার

 


নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের পিরোজপুর ইউনিয়নের মঙ্গলেরগাঁও গ্রামের আলোচিত শিশু সোয়াইব হোসেন হত্যা মামলার রায়ে ৩ জনকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই মামলায় একজনকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদন্ড ও ৬জন খালাশ দিয়েছেন।


সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক শেখ রাজিয়া সুলতানা এ রায় প্রদান করেন। রায় প্রদানের পর দন্ডিতদের আদালত থেকে কারাগারে পাঠানো হয়। আসামীদের মধ্যে ফজল হক, জসিম উদ্দিন ও রাজু মিয়াকে ফাঁসির আদেশ এবং আসামী নাছিরউদ্দিনকে ১০ বছরের সাজা প্রদান করা হয়। খালাশ পেয়েছেন রিনা আক্তার, ইকবাল, এমদাদ, আলী আহম্মদ, মোশারফ হোসেন, সিরাজ।


গত ৯ নভেম্বর শিশু সোয়াইব হোসেন হত্যাকান্ডের রায় ঘোষনার কথা থাকলেও রায়ের তারিখ পিছিয়ে আগামী ২৫ নভেম্বর ধার্য্য করা হয়েছিল,পরে আবারও তারিখ পিছিয়ে ৩০ নভেম্বর রায় ঘোষণা করা হয়।


রায়ের সত্যতা নিশ্চিত করে আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রশিকিউটর আব্দুর রহিম বলেন, ২০১৩ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি সোনারগাঁয়ের মঙ্গলেরগাঁও গ্রামের নাজমুল হোসেন মাসুমের ছেলে শান্তিনগর দারুন নাজাত নূরানী মাদ্রাসার প্রথম শ্রেণীর ছাত্র সোয়াইব হোসেন নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের ৬ দিন পর একই এলাকার একটি নির্মাণাধীন ভবনের পাশের জঙ্গল থেকে গলাকাটা, শরীর ঝলসে দেওয়া ক্ষতবিক্ষত সোয়াইব হোসেনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।


তিনি আরো বলেন, এ ঘটনায় সোয়াইবের বাবা অপহরণের পর হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে একই এলাকার ১৩ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। আলোচিত এ মামলার রায়ে আদালত যাদের খালাশ দিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে বাদী পক্ষ আপিল করবেন। এছাড়াও যাদের মৃত্যুদন্ড দিয়েছে তাদের রায় বহাল রাখতে চেষ্টা করবেন।


মামলার বাদী নাজমুল হোসেন মাসুম বলেন, যারা সাজা পেয়েছে আর যারা খালাশ পেয়েছে তারা সবাই আমার সন্তানকে নির্মম ভাবে খুন করেছে। আদালতে ১৬৪ ধারায় দোষ স্বীকার করে আসামীরা জবানবন্দি দিয়েছে। আমি এ রায়ে সন্তুষ্ট নয় উচ্চ আদালতে আপিল করবো।

Tags

সাবসক্রাইব করুন!

সবার আগে নিউজ পেতে সাবসক্রাইব করুন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন