SS TV live
SS TV
wb_sunny

এই মুহুর্তে

চোরাই মোটরসাইকেল কেনা-বেচা চক্রের ৮ সদস্য গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ




জিহাদ হক্কনী : গাইবান্ধার কয়েকটি উপজেলায় অভিযান চালিয়ে চোরাই মোটরসাইকেল কেনা-বেচা ও ভুয়া রেজিস্ট্রেশনসহ হলফনামা তৈরি সিন্ডিকেটের ৮ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে জেলা ডিবি পুলিশ।

জানা গেছে, গাইবান্ধা সদর থানার উত্তর গোবিন্দপুর গ্রামের হাবিবুর রহমানের পুত্র সুরুজ মিয়া সম্প্রতি একটি বাজাজ ডিসকভার ১০০ সিসি পুরাতন মোটরসাইকেল ক্রয় করে। পরবর্তীতে সে জানতে পারে মটরসাইকেলটি চোরাই এবং এর রেজিস্ট্রেশন ও পূর্বের হলফনামাটিও ভুয়া। একটি সক্রিয় সিন্ডিকেটের সদস্যদের দ্বারা প্রতারিত হওয়ায় সে গাইবান্ধা সদর থানায় একটি অভিযোগ জমা করলে তদন্তে নামে গাইবান্ধা জেলার ডিবি পুলিশ। তদন্তে ঘটনার প্রাথমিকভাবে সত্যতা পাওয়ায় বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে জেলা ডিবি পুলিশের একাধিক টিম। এসময় চোরাই মোটরসাইকেলের কেনা-বেচা ও জাল রেজিস্ট্রেশন চক্রের মূলহোতা গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার নাকাই গ্রামের জালাল সরকারের পুত্র মান্নান সরকার (৪৭), দক্ষিণ ধানঘড়া গ্রামের মশিউর রহমান ওরফে রঞ্জুর পুত্র ইমরান হোসাইন (৩০), জোদ্দকড়িশিং গ্রামের নুরুন্নবী সরকারের পুত্র মোশারফ হোসেন ওরফে লিমন(৩০), কোমরপুরের আকতার হোসেনের পুত্র নূর আলম(৩০), পাখেড়া গ্রামের মাহফুজার রহমানের পুত্র মাসুদকে(৫০) আটক করে। আসামীরা ঘটনার বিষয়গুলো স্বীকার করে। তারা চোরাই মোটরসাইকেলের জাল রেজিস্ট্রেশন ও মোটর সাইকেলের ইঞ্জিন, চেচিসের নম্বর টেম্পারিংকারী।

এসময় পাবনা জেলার সদর থানার সালগাড়িয়া গ্রামের মৃত কামাল উদ্দিনের পুত্র আঃ সামাদকে (৫০) গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে সুন্দরগঞ্জ থানায় মটরসাইকেল চুরি ও উদ্ধার মামলা রয়েছে। আসামীদের বিরুদ্ধে গাইবান্ধা সদর থানায় ৭ সেপ্টেম্বর ৪২০/৪৬৮/৪৭১/৪১৩ দণ্ডবিধিতে মামলা নং ১৬ দায়ের করা হয়।

অপরদিকে জেলা গোয়েন্দা শাখার এস আই জহুরুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৬ সেপ্টেম্বর সাদুল্লাপুর থানাধীন বনগ্রামে অভিযান চালিয়ে মৃত নাছিম উদ্দিনের পুত্র রায়হান মিয়াকে (৪৮) বাড়ি থেকে চোরাই মটরসাইকেলসহ (বাজাজ সিটি-১০০) আটক করে। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে কেনা-বেচা চক্রের অপর সক্রিয় সদস্য সাদুল্যাপুর উপজেলার কিশামত খেজু গ্রামের বিজয় চন্দ্র মোহন্তের ছেলে উজ্জ্বল মোহন্তকে ও সদর থানার খামার বোয়ালিয়া গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে আশরাফুলকে (৩৮) গ্রেফতার করে। তাদের বিরুদ্ধে ৭ সেপ্টেম্বর সাদুল্যাপুর থানায় দণ্ডবিধির ৪১১/৪১৩ ধারায় মামলা নং-১২ রেকর্ড করে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়।

Tags

সাবসক্রাইব করুন!

সবার আগে নিউজ পেতে সাবসক্রাইব করুন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন