SS TV live
SS TV
wb_sunny

এই মুহুর্তে

সোনারগাঁওয়ে জোড়পূর্বক বিরোধপূর্ণ জমিতে ঘর নির্মাণের অভিযোগ।

 

সোনারগাঁও সময়ঃ  সোনারগাঁ উপজেলার পৌরসভা এলাকায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জোরপূর্বক বিরোধপূর্ণ সম্পতিতে ঘর নির্মান করার অভিযোগ উঠেছে রিনা আক্তার তার ছেলে সাব্বির আহম্মেদ শাহীন গ্যাং এর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় বাদি হয়ে জাকির হোসেন সোনারগাঁ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।


জানাগেছে, সোনারগাঁও পৌরসভার খাগুটিয়া এলাকায় ৬ শতাংশ জমি নিয়ে রিনা আক্তার গ্যাং জাকির মাষ্টার গ্যাং এর সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে স্থানীয় উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন ও স্থানীয় লোকজন কয়েকবার বিচার শালিশ করেন। কিন্তু জায়গায় ব্যাপারে কোন মিমাংশা দিতে পারেনি। গত ১১ তারিখে রিনা গ্যাং এর লোকেরা জোড় পূর্বক বিরোধপুর্ণ জমিতে ঘর নির্মাণ করতে গেলে বাঁধা দেন জাকির মাষ্টার গ্যাংরা। তারা সেই বাঁধা অমান্য করে তাদের মারধর করে রিনার ছেলে সাব্বির আহম্মেদ শাহীন, সাইজুদ্দিন, আব্দুর আজিজ, রাহিমা বেগম, আব্দুর মজিদরা তাদের ঘর নির্মাণ চালিয়ে যান। এ ঘটনায় জাকির মাষ্টার বাদি হয়ে ওইদিনই সোনারগাঁ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে সোনারগাঁ থানার এসআই ওয়াদুদ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়ে ঘর নির্মান বন্ধ করতে বলেন। তখন সাব্বির আহম্মেদ শাহীন তার মোবাইলে ফেইবুক লাইফে এসে উপস্থিত পুলিশকে লাঠিয়ার হিসেবে উল্লেখ করে পুলিশকে বির্তকিত করার চেষ্টা করে এবং জাকির মাষ্টার গ্যাংদের বিরুদ্ধে কুরুর্চিপূণ বক্তব্য দিয়ে তাদের মানহানী করে। এ ঘটনায় আছিয়া বেগম বাদি হয়ে গতকাল মঙ্গলবার নারায়ণগঞ্জ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আইসিটি আইনে একটি মামলা দায়ের করে। এছাড়া বিরোধপূর্ণ সম্পতিতে কোন কার্যক্রম চালাতে না পারে সে জন্য আদালত থেকে একটি নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। এদিকে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রিনা তার ছেলে সাব্বির গ্যাং আজ বুধবার সকালে ঘর নির্মান করতে গেলে জাকির হোসেন বাধা দেয় এবং বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে কাজ বন্ধ করে দেয়।


এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ঘর নির্মান করছে এখবর পাওয়া মাত্র পুলিশ গিয়ে কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। আদালতের রায় অমান্য করে কেউ যদি কোন কাজ করতে চায় তাহলে নিয়ম মাফিক তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Tags

সাবসক্রাইব করুন!

সবার আগে নিউজ পেতে সাবসক্রাইব করুন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন