SS TV live
SS News
wb_sunny

এই মুহুর্তে

সোনারগাঁয়ে পারা মহল্লায় চলছে রমরমা ভ্রাম্যমাণ চায়ের ব্যবসা।

করোনা ভাইরাস ঠেকাতে সরকারের পক্ষ থেকে গণসচেতনতা থেকে শুরু নানামূখি প্রদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে। এরপরও কমাতে পারছেনা গণজমায়েত। মানুষ করোনার ভয় উপেক্ষা করে সন্ধ্যার পর উপজেলার বিভিন্ন পাড়া মহলায় জমে উঠে মানুষের মেলা। চায়ের দোকান বন্ধ থাকলেও অলি গলিতে বাসার ভিতর থেকে বসেছে চা এর দোকান থেকে শুরু করে প্রত্যেক দোকানে যেন এক একটা মেলার দোকান। এতো সচেতনতার পরও যেন মানুষ সচেতন হচ্ছে না। প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা থেকে শুরু করে বিভিন্ন জায়গায় মাইকিং লিফলেট বিতরন, প্রত্যেক এলাকার জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে কমিটি করে লোকজনকে ঘরের বাহিরে আসা নিষেধ করার পরও মানুষ শুনছেনা কারো কথা।
. করোনা ভাইরাস শুরু হওয়ার পর থেকে সরকারী বেসরকারী ও জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে গনসচেতনতা থেকে শুরু করে লিফলেট, করোনা প্রতিরোধক স্যানেটাইজার, মাস্কসহ অন্যান্য সমাগ্রী প্রদান করা হয়েছে সাধারণ জনগনের মাঝে। করোনা মোকাবেলায় গনজমায়েত বন্ধ করতে সরকারী বে সরকারী ও রাজনৈতিক সকল অনুষ্ঠান ব্যাংক বেসরকারী প্রতিষ্ঠান দোকানপাঠ ও গনপরিবহন বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বলা হয়েছে প্রত্যেকে যে যার যার ঘরে অবস্থান নেন। কিন্তু এসব কিছু উপেক্ষা করে এক শ্রেনীর মানুষ প্রয়োজন ছাড়াই জমায়েত হচ্ছেন পাড়া মহল্লায়।
সরেজমিনে কাঁচপুর বাসষ্ঠ্যান্ড বাজার, নয়াপুর বাজার, বারদীবাজার, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের নিচে, মজহমপুর বাজার, মেঘনা শিল্পাঞ্চল,পৌরসভা দৈলেরবাগ, বটতলা বাজার, হোসেনপুর বাজার ঘুরে দেখেছেন দিনের বেলা প্রশাসনের ভয়ে গণজমায়েত কম থাকলেও সন্ধ্যার পর থেকে শুরু হয় মানুষের আনাগোনা। প্রত্যেক দোকানদাররা তাদের দোকান খুলে বসেছে। চায়ের দোকানদার টেবিল চেয়ার বিছিয়ে মানুষ বসার জায়গা করে দিয়ে ধুমধাম ব্যবসা পরিচালনা করছেন। তাদের দেখে মনে হয় দীর্ঘদিন জেলখানায় বন্দি থেকে সন্ধ্যার পর শেষ স্বাস্থি ফেলতে বাজারে এসেছেন।
পৌরসভার দৈলেরবাগ গ্রামে চায়ের দোকানে শাহিন নামে বসা এক ব্যক্তিকে করোনার ভয়াবহতা সম্পকে জিঞ্জেস করলে তিনি জানান, আল্লাহ যে ভাবে মরন রেখেছে সে ভাবেই মরব। সরকার আইন করছে রাস্তায় চলাফেরা করা যাবেনা কিন্তু গ্রামের ভেতর তো নিষেধ করেনি,সারা দিনকি ঘরে বসে থাকা যায়। তাই অনেক কষ্টে একটা চায়ের দোকানে খুজে পেয়ে এসেছি এক কাপ চা খেতে

Tags

সাবসক্রাইব করুন!

সবার আগে নিউজ পেতে সাবসক্রাইব করুন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন