SS TV live
SS News
wb_sunny

এই মুহুর্তে

সোনারগাঁওয়ে দু'গ্রুপের সংঘর্ষে আওয়ামী কার্যালয়সহ প্রধানমন্ত্রী ও জাতিরপিতার ছবি ভাংচুর - সোনারগাঁও সময়।

সোনারগাঁও সময়ঃ   সোনারগাঁওয়ে এলাকার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামীলীগ ও জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষে আওয়ামী কার্যালয়সহ প্রধানমন্ত্রী ও জাতিরপিতার ছবি ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। সোমবার রাতে উপজেলা পিরোজপুর ইউনিয়নের পাচানী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে ৫ জন আহত হয়। সংঘর্ষের ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে উভয় গ্রুপের লোকজন প্রতিপক্ষে বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ভাংচুর ও স্থানীয় আওয়ামীলীগের অফিস ভাংচুর করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার উভয় পক্ষের অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের খাসেরগাঁও এলাকার হযরত আলীর ছেলে স্থানীয় আওয়ামীলীগের কর্মী জলিল ও মাসুদের সাথে গত সোমবার বিকেলে পার্শ্ববর্তী এলাকার জাতীয় পার্টির সর্মথক কুদ্দুস মিয়ার সাথে তুুুুচ্ছ ঘটনা নিয়ে তর্ক হয়। এর জের ধরে সোমবার রাতে উপজেলা পাচানী এলাকায় জলিলের লোকজন কুদ্দুস মিয়ার ওপর হামলা চালিয়ে তাকে মারধর করে। এ ঘটনার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উভয় গ্রুপের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। তারা একে অপরের বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ভাংচুর ও ওই এলাকার স্থানীয় আওয়ামীলীগ অফিস ভাংচুর করে। সংঘর্ষে মনির মেম্বার, কুদ্দুস, জাহাঙ্গীরসহ ৫ জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
আহত জাতীয় পার্টির নেতা মনির মেম্বার ও জাহাঙ্গীর বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে এর আগেও মাসুদ রানা মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করছে। একজন অসহায় মানুষকে কেন মারধর করলো এটা জিজ্ঞেস করলে তারা আমাদের উপরে হামলা চালিয়ে উল্টো আমাদের মিথ্যে মামলায় ফাঁসাতে পায়তারা করছে। তারা আমাদের বাড়িঘর ভাংচুর করে। তারা নিজেরাই আওয়ামীলীগের অফিসের চেয়ার ও অফিস তছনছ করে উল্টো আমাদেরকে ফাসাচ্ছে।
অভিযুক্ত জলিল তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, মনির মেম্বার ও জাহাঙ্গীর আমাদের আওয়ামীলীগ অফিস ও বাড়িঘর ভাংচুর করেছে।
সোনারগাঁও থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, উপজেলার পাচানী এলাকায় দু’পক্ষের সংঘর্ষের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Tags

সাবসক্রাইব করুন!

সবার আগে নিউজ পেতে সাবসক্রাইব করুন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন