SS TV live
SS News
wb_sunny

এই মুহুর্তে

উপজেলা আওয়ামীলীগের নয়া- কমিটির বৈধতা নেই: কালাম। সোনারগাঁও সময়

সোনারগাঁও সময় ডেস্ক: সোনারগাঁও উপজেলার ঘোষিত  নয়া-আহবায়ক  কমিটিকে সম্পূর্ণ  অবৈধ বলে আখ্যায়িত  করে মন্তব্য  করেছেন মাহুফুজুর রহমান কালাম।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে কালাম বলেন, সোনারগাঁয়ে আওয়ামীলীগের কোন কমিটি হয়নি। যা হয়েছে পুরাটাই অবৈধ । আমি এখনো সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক । আমার সাথে এখনও সোনারগাঁ উপজেলা অওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা আছেন । আমি তাদেরকে নিয়ে দলের সকল কর্মসূচী পালন করছি এবং আগামী দিনগুলিতে করে যাব। আমার কমিটি এখনো বলবৎ আছে। তিনি আরো বলেন, আমি ছাত্র জীবন থেকে সোনারগাঁওয়ের আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে রাজপথে থেকে রাজনীতি করে আসছি। আমি আপনাদের সাথে যেমন ছিলাম সবসময় আপনাদের সাথেই থাকবো। আমরা সবাই একত্রিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশের গড়তে কাজ করে যাবো।
মাহফুজুর রহমান কালমকে দল থেকে অব্যাহতি দেয়ার বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করলে, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে কালাম বলেন, কাউকে অব্যাহতি দেওয়ার ক্ষমতা একমাত্র জননেত্রী শেখ হাসিনা হাতেই আছে। আমি সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নেতা কর্মীদের নিয়ে দলীয় কার্যক্রম পরিচালনা করছি, করবো।
উল্লেখ্য, গত ১৫ জুলাই জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তরসম্পাদক স্বাক্ষরিত এক চিঠির মাধ্যমে বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এড. শামসুল ইসলামকে আহ্বায়ক ও পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জি. মাসুদুর রহমান মাসুমকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে ৮ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়।
কমিটিতে সামসুল ইসলাম ভূইয়া আহবায়ক এবং সোনারগায়ের পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমানকে যুগ্ম আহবায়ক করা হয়েছে। এছাড়াও কমিটির বাকি সদস্যরা হলেন জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক প্রফেসর ডা. আবু জাফর চৌধুরী বিরু, জেলা আওয়ামীলীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক এস এম জাহাঙ্গীর, মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু, সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বাবু ওমর, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা আক্তার ফেন্সী ও সামসুদ্দিন খান আবু।  নতুন আহবায়ক কমিটির বিষয়টি স্বীকার করেছেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই ও সাধারন সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ বাদল।
প্রসঙ্গত গত ৩১ মার্চ সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। আর সেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী মোশারফ হোসেনের পাশাপাশি বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে থানা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালামও প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছিলেন।

Tags

সাবসক্রাইব করুন!

সবার আগে নিউজ পেতে সাবসক্রাইব করুন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন