SS TV live
youtube
wb_sunny

এই মুহুর্তে

লাসিথ মালিঙ্গার বিদায় ম্যাচে হার টাইগারদের

নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা পেসার লাসিথ মালিঙ্গাকে জয় দিয়ে বিদায় জানাল শ্রীলঙ্কা। কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ৯১ রানে তামিমদের হারিয়েছে স্বাগতিকেরা।
তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে শুক্রবার টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে কুশল পেরেরার সেঞ্চুরিতে ৮ উইকেটে ৩১৪ রান সংগ্রহ করে মালিঙ্গার দল। জবাবে বাংলাদেশ গুটিয়ে যায় ২২৪ রানে। ৪১.৪ ওভারে।
১, ২৯, ০, ৯। বড় টার্গেট তাড়া করতে নেমে প্রথম চার জুটিতে বাংলাদেশের চিত্র ছিল এমন। পঞ্চম উইকেটে মুশফিকুর রহিম এবং সাব্বির রহমান চেষ্টা করেছেন বড় জুটি গড়ার। কিন্তু তাদের ১১১ রান ম্যাচ বাঁচানোর জন্য যথেষ্ট ছিল না।
প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে অধিনায়ক তামিমকে হারায় বাংলাদেশ। ৫ বলে কোনো রানই করতে পারেননি এই ওপেনার। দুর্দান্ত এক ইয়র্কারে তাকে মাটিতে ফেলে দেন বিদায়ী ম্যাচ খেলতে নামা লাসিথ মালিঙ্গা।

বাংলাদেশ দ্বিতীয় উইকেট হারায় অষ্টম ওভারে। মোহাম্মদ মিঠুনকে (১০) এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন নুয়ান প্রদীপ।
পরের ওভারে বিদায় নেন সৌম্য সরকার (১৫)। দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে তাকে বোল্ড করেন মালিঙ্গা। বেশিক্ষণ থাকতে পারেননি রিয়াদও। ১২তম ওভারের শেষ বলে লাহিরু কুমারার ঘণ্টায় ১৪২ কিলোমিটার গতির এক ডেলিভারি থার্ডম্যানে ঠেলতে গিয়ে ধরা পড়েন। ১০ বলে ৩ রান করতে পারেন তিনি।
৬ ম্যাচ পর অর্ধশতকের দেখা পাওয়া সাব্বির বিদায় নেন ২৯তম ওভারে। রাইট-আর্ম অফব্রেক বোলার ধনঞ্জয়া ডি সিলভার বলে ক্যাচ তুলে দেওয়ার আগে ৫৬ বলে ৭টি চারের মারের সাহায্যে ৬০ রান করেন।
এরপর মোসাদ্দেক হোসেন (১২) রানআউট হলে আরও বিপাকে পড়ে যায় বাংলাদেশ। মিরাজ (২) এসেও বেশিক্ষণ ঠিকতে পারেননি।
মুশফিক তবু লড়াই চালিয়ে যান। তার সেই লড়াইটা শেষ হয় ৬৭ রানের মাথায়। চার নম্বরে নেমে ৮৬ বলে ৫টি চারের মারের সাহায্যে এই রান করেন তিনি।
শ্রীলঙ্কার ইতিহাসে ওয়ানডেতে তৃতীয় সর্বাধিক উইকেট শিকারি হিসেবে ওয়ানডে ক্যারিয়ার শেষ করলেন মালিঙ্গা, ২২০ ইনিংসে ৩৩৮টি। তার থেকে এগিয়ে কেবল মুত্তিয়া মুরালিধরন (৫২৩) এবং চামিন্দা ভাস (৩৯৯)। এদিন ৯.৪ ওভারে ৩৮ রান খরচায় নিয়েছেন ৩ উইকেট।
মালিঙ্গাকে সিরিজের বাকি তিনটি ম্যাচ খেলার অনুরোধ করেছিলেন নির্বাচকেরা। কিন্তু ‘ক্লান্তির’ কারণে সেই অনুরোধ রাখেননি তিনি।

Tags

সাবসক্রাইব করুন!

সবার আগে নিউজ পেতে সাবসক্রাইব করুন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন