সোনারগাঁয়ে প্রেমের টানে দুই সন্তানের জননীকে পালিয়ে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ।

 



নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার সনমান্দী ইউনিয়নের ইমানের কান্দি এলাকায় শ্বশুরের চতুর্থ সংসারের ছেলে অন্তুরের হাত ধরে প্রথম সংসারের ছেলে ছিদ্দিকুর রহমানের স্ত্রী দুই সন্তানের জননী পালিয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।


প্রতিবেদককে এলাকাবাসী জানান, ইমানের কান্দি গ্রামের মৃত সামসুদ্দীনের ছেলে পুলিশের সোর্স খ্যাত দেলোয়ার হোসেনের 

চতুর্থ সংসারের ছেলে অন্তুরের সাথে দীর্ঘদিন ধরে প্রথম সংসারের ছেলে ছিদ্দিকুর রহমানের স্ত্রী দুই সন্তানের জননীর পরকিয়া সম্পর্ক চলে আসছিল। ছিদ্দিকুর রহমান পেশায় গাড়ির চালক হওয়ার কারণে তাকে বেশির ভাগ সময় বাড়ির বাইরে থাকতে হতো। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সিদ্দিকুর রহমানের স্ত্রী হাসিনা আকতার ও অন্তুরের মাঝে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে।


পরকীয়ার টানে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি কথিত পুলিশের সোর্স দেলোয়ার হোসেনের চতুর্থ সংসারের ছেলে অন্তুরের হাত ধরে প্রথম সংসারের ছেলে ছিদ্দিকুর রহমানের স্ত্রী দুই সন্তানের জননী হাসিনা আক্তার ছোট সন্তানসহ নগদ ৫ লাখ টাকা ও স্বর্ণালংকার সাথে নিয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। 

এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে । দেলোয়ার নিজেও বিভিন্ন ভাবে পাঁচটি বিয়ে করেছেন বলে এলাকাবাসী জানান। বর্তমানে সে তিন বউ আলাদা আলাদা সংসার করছেন।এলাকাবাসী আরও জানান, বিভিন্ন সময় কথিত পুলিশের সোর্স দেলোয়ারের বাড়িতে সন্দেহ জনক কর্মকান্ড হয়ে আসছে। অপরিচিত যুবক যুবতীদের আসা যাওয়া নিত্য প্রায়। দেলোয়ার নিজেকে পুলিশের সোর্স দাবি করে এলাকায় বিভিন্ন সময়ে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড করে বেড়ায়। পুলিশের সোর্স দাবী করার কারণে এলাকাবাসী ভয়ে কেউ মুখ খোলেন না। শুধু তাই নয় সে সরকার দলীয় বিভিন্ন নেতাদের সাথে ছবি তুলে এবং নিজের ছবির সাথে সরকারি দলের নেতাদের ছবি সম্বলিত ব্যানার ফেস্টুন বানিয়ে নিজেকে আওয়ামী লীগের নেতা পরিচয় দিয়ে থাকে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

merrymoonmary থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget