সোনারগাঁয়ে চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে কিশোরীকে ধর্ষন,আটক-১

 






নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে কাঁচপুর উত্তরপাড়া গ্রামে এক কিশোরীকে বান্ধবীর সহযোগিতায় কোমল পানীর সঙ্গে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ইসমাঈল নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। সোমবার বিকেলে অভিযুক্ত ইসমাঈলের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর মঙ্গলবার দুপুরে ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় দুজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নারায়ণগঞ্জ ভিক্টরিয়া হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

সোনারগাঁ থানায় দায়ের করা এজাহারে কিশোরীর মা উল্লেখ করেন,ধর্ষিত কিশোরী স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেণীতে পড়ালেখা করে। উপজেলার কাঁচপুর উত্তরপাড়া গ্রামের আল আমিনের মেয়ে লামিয়া আক্তার ভূক্তভোগী ওই কিশোরীর বান্ধবী। আমি ও আমার স্বামী কাজে চলে যাওয়ার পর লামিয়া আমাদের বাড়িতে নিয়মিতভাবে যাতায়াত করতো। সোমবার বিকেলে লামিয়া আমার বাড়িতে এসে তার চাচা একই গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে ইসমাঈলের বাড়িতে বেড়ানোর কথা বলে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে কৌশলে কোমল পানীর সঙ্গে ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে অচেতন করে লামিয়ার সহযোগিতায় ওই কিশোরীকে ইসমাইল ধর্ষণ করে। সন্ধ্যার দিকে ঘুম থেকে জেগে কিশোরী নিজেকে বিবস্ত্র অবস্থায় দেখতে পায়। এ বিষয়টি বাড়িতে গিয়ে তার মায়ের সঙ্গে বিস্তারিত আলোচনার পর সোনারগাঁ থানায় এসে মঙ্গলবার দুপুরে ধর্ষিত নারীর মা বাদী হয়ে দুজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন।


সোনারগাঁ থানার ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় মামলা গ্রহন করা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত লামিয়া আক্তারকে আটক করা হয়েছে। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

MKRdezign

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget