সোনারগাঁও থানা পুলিশের উদ্যেগে ওপেন হাউজ-ডে অনুষ্ঠিত

 




সোনারগাঁও সময়ঃ

কতিপয় কর্মকর্তার অসৎ কর্মকাণ্ডে যখন পুলিশের প্রতি মানুষের বিরূপ ধারণা জন্ম নিয়েছে ঠিক তখন সততা আর পেশাগত প্রচেষ্টার মধ্য দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম। নিরলস প্রচেষ্টার মাধ্যমে মামলার প্রকৃত রহস্য উদঘাটন, দ্রুত সময়ে অপরাধী গ্রেফতারসহ ইভটিজিং ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে তার ভূমিকা ইতোমধ্যেই নজর কেড়েছে সোনারগাঁও বাসীর। পুলিশের সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে নারায়ণঞ্জের সোনারগাঁওয়ে  অনুষ্ঠিত হয়েছে ওপেন হাউজ-ডে। সোমবার ১৮ জানুয়ারি বিকালে সোনারগাঁও থানা পুলিশের আয়োজনে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে এই ওপেন হাউজ-ডে অনুষ্ঠিত হয়। সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে


ওপেন হাউজ-ডেতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) জাহেদ পারভেজ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রফেশনাল) শামীম হোসেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) জাহেদ পারভেজ চৌধুরী সোনারগাঁও মাদক, কিশোর গ্যাং, বাল্য বিবাহ, জঙ্গিবাদ, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি সহ থানা এলাকায় বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড নির্মূলে পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করার আহ্বান জানান। সভাপতির বক্তব্যে সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, আমি সোনারগাঁও থানায় যোগদান করার পর থেকে থানায় দালালদের দৌরাত্ম্য কমে গেছে। দালালদের সতর্ক করে থানায় তদবিরের জন্য না আসতে বলেন। এখন সেবাপ্রার্থীরা দালাল ছাড়াই নির্বিঘ্নে থানায় আসা-যাওয়া করতে পারছেন। কেউ যদি মনে করেন থানা মানেই টাকা তাহলে এটা ভুল হবে। স্বল্প সময়ে জনগণের দোড়গোড়ায় আইনি সেবা প্রদানের লক্ষ্যে এবং নির্দিষ্ট এলাকার আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখতে বিট পুলিশিং কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। বিট পুলিশিং কার্যক্রমে একজন এসআই ও একজন এএসআই নির্দিষ্ট একটি এলাকায় দায়িত্ব পালন করছেন।  সেই এসআই ও এএসআই ওই এলাকার জনগণকে দ্রুততার সাথে আইনি সেবা দিচ্ছে। আইনি সেবা প্রদানে প্রয়োজন অনুসারে জনগণের দোড়গোড়ায় যাচ্ছে পুলিশ।

 সেই সেবা সোনারগাঁও থানার প্রতিটি ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে কাজ শুরু করেছি আমরা। বিট কার্যক্রম শুরু করার পর নির্দিষ্ট এলাকার জনগণের কাছ থেকে মাদক ব্যবসায়ী, মাদকসেবী, দালাল, ছিনতাইকারী সহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের তথ্য আসতে শুরু করেছে। আমরা সেই সব তথ্য নিয়ে আইনি প্রক্রিয়ায় কাজ করছি। সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, বিট পুলিশিং কার্যক্রম বাংলাদেশ পুলিশের অত্যন্ত ইতিবাচক একটি পদক্ষেপ, যা বাস্তবায়নে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তার নেতৃত্বেই সোনারগাঁও থানা পুলিশ নিজেদের সর্বোচ্চ মেধা দিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। সোনারগাঁও থানায় বর্তমানে মামলা সহ পুলিশ সংশ্লিষ্ট কাজে সহায়তা পেতে ভুক্তভোগীদের কোনো টাকা লাগে না। থানায় কোনো সোর্স বা দালালদের স্থান নেই। সোনারগাঁও থানার ওসি তদন্ত তবিদুরর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত ওপেন হাউজ-ডে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সোনারগাঁও থানার পুলিশের সেকেন্ড অফিসার এসআই পংকজ কান্তি সরকার, সুভাষ চন্দ্র সরকার, এএসআই পারভিন সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও গণমাধ্যম কর্মীগণ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

MKRdezign

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget