বগুড়ায় যাত্রীবাহী বাসে আগুন অল্পের জন্য বেঁচে গেল কিছু প্রান

 



শেখর চন্দ্র সরকার  বগুড়া জেলা প্রতিনিধিঃ


রাস্তায় মৃত্যুর মিছিল যেন থামছেই না অদক্ষ গাড়ি চালক। যোগ্যতা বিহীন (আনফিট) গাড়ি আবার কখনবা মাদকাসক্ত ড্রাইভার। সবমিলিয়ে রাস্তায় অঘটন ঘটেই চলেছে। সরকারের তরফ থেকে বারবার বিধি নিষেধ করলেও কোনো তোয়াক্কাই যেন করে না কেউ, দেশে আইন আছে অথচ প্রয়োগ নেই ঠিক তেমনি এক দুর্ঘটনা ঘটেছে বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলায়।

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলায় যাত্রীবাহী বাসের চাকা ফেটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অল্পের জন্য বেঁচে গেছে কিছু মানুষের প্রাণ।  স্বামী-স্ত্রীসহ ১৫জন যাত্রী আহত হয়েছেন। বুধবার বিকেলে বগুড়া-আক্কেলপুর সড়কে দুপচাঁচিয়া উপজেলা সদরের কনকা বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।


খবর পেয়ে দুপচাঁচিয়া ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।


পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায় , বুধবার বিকেলে জয়পুরহাটের আক্কেলপুর থেকে দুপচাঁচিয়া হয়ে প্রিন্স (জয়পুরহাট-ব-০৫-০০০৩) নম্বররের একটি যাত্রীবাহী বাস বগুড়ায় যাচ্ছিল। এ সময় দুপচাঁচিয়া উপজেলার সদরের কনকা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছালে বাসটির পিছনের চাকা বিকট শব্দে ফেটে যায়। এতে মুহূর্তেই বাসে গ্যাস সিলিন্ডার থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত ঘটে। ঘটনার সাথে সাথেই প্রাণ বাঁচাতে বাসের যাত্রীরা দ্রুত নামার চেষ্টা করেন। এ সময় কেউ জানালা দিয়ে, কেউবা ঠেলাঠেলি করে দরজার সামনে দিয়েই নামার চেষ্টায় করেন। এতে মহিলাসহ প্রায় ১৫ জন যাত্রী আহত হন। এদের মধ্য বেশ কয়েক জনের অবস্থা আশঙ্কা জনক।


দুপচাঁচিয়া থানার ওসি হাসান আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বাসটি গ্যাসচালিত, গ্যাস সিলিন্ডার থেকেই আগুনের সূত্রপাত হতে পারে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

MKRdezign

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget