আগামীকাল বিদ্যুৎতের আলোয় আলোকিত হতে যাচ্ছে নুনেরটেক

 



সোনারগাঁও (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি 


দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে আগামীকাল রবিবার থেকে বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত হতে যাচ্ছে সোনারগাঁ উপজেলার মেঘনা নদীবেষ্টিত প্রত্যন্ত চর নুনেরটেক। প্রায় ২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে সোনারগাঁয়ের মূল ভূখন্ড থেকে মেঘনা নদীর তলদেশ দিয়ে ৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ লাইন টানার কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। আগামীকাল সোনারগাঁয়ের সংসদ সদস্য উপস্থিত থেকে বিদ্যুৎতের উদ্ধোধন করবেন।


জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ-৩(সোনারগাঁ) আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার  যুগান্তকারী পদক্ষেপে মেঘনা নদীবেষ্টিত উপজেলার দুর্গম চরাঞ্চল নুনেরটেকে বিদ্যুৎ পৌঁছে যাচ্ছে ।


বর্তমান সরকার ঘোষিত ২০২১ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়ার অংশ হিসেবে সোনারগাঁয়ে বিদ্যুৎ বঞ্চিত। এ চরে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল বলে জানান সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা।


জানা গেছে, মেঘনা নদীর মধ্যে প্রায় ২০০ বছর আগে জেগে ওঠা এ চরে বর্তমানে প্রায় ২০ হাজার লোকের বসবাস। এখানকার বেশির ভাগ মানুষ মৎস্যজীবী ও কৃষিজীবী। নুনেরটেকবাসী স্বাধীনতার পর থেকেই স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে বিদ্যুতের দাবি জানিয়ে আসছিলেন।


বারদী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান জহিরুল হক বলেন, ‘আমার ইউনিয়নের নুনেরটেক দ্বীপটি ছিল বিদ্যুৎবিহীন একটি জনপদ। এখানকার মানুষ বিদ্যুতের জন্য দীর্ঘদিন থেকে দাবি জানিয়ে এলেও তাদের এ দাবি পূরণ করা সম্ভব হয়নি। কিন্তু বর্তমান সরকার এ প্রত্যন্ত দ্বীপে বিদ্যুৎসংযোগ দেওয়ার যে উদ্যোগ নিয়েছে তা সত্যি প্রশংসনীয়।’


সোনারগাঁ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির উপমহাব্যবস্থাপক জোনাব আলী জানান, নুনেরটেকে বিদ্যুৎসংযোগ দেওয়ার জন্য দ্রুতগতিতে কাজ করে এগিয়েছি। ইতিমধ্যে খুঁটি স্থাপনসহ সমগ্র কাজ শেষে আল্লাহ চায়তো আগামীকাল (২০ ডিসেম্বর) মাননীয় সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার হাতে উদ্বোধন হয়ে নুনেরটেক মানুষ বিদ্যুৎতের আলো দেখবে। 


স্থানীয় সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এ প্রত্যন্ত দ্বীপে বিদ্যুৎসংযোগ দেওয়ার যে উদ্যোগ নিয়েছে তা সত্যি প্রশংসনীয়।’ সোনারগাঁয়ে অনেক জনপ্রতিনিধি এসেছেন কিন্তু স্বাধীনতার ৪৮ বছর পরও কোন জনপ্রতিনিধি এই নুনেরটেকে বিদ্যুৎ সংযোগ স্থাপন করতে পারেনি। অবশেষে আমার উদ্যোগে আল্লাহর অশেষ মেহের বানিতে মেঘনা নদী বেষ্টিত চরাঞ্চল নুনেরটেক গ্রামটিতে আগামীকাল বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত হবে। 


আগামীকাল থেকে গ্রামটির ২০ হাজার মানুষ পল্লী বিদ্যুতের সুবিধা ভোগ করবেন। তিনি সোনারগাঁও বাসীকে এই অভূতপূর্ব স্মরণীয় ক্ষণের স্বাক্ষী হতে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানান।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

MKRdezign

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget