গাইবান্ধা ফুলছড়ির ভুষিরভিটা গ্রামে এক সপ্তাহে নদী ভাঙনে শতাধিক পরিবার গৃহহীন




জিহাদ হক্কনী : গাইবান্ধা ফুলছড়ি ব্রহ্মপুত্রের অব্যাহত ভাঙনে গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার উড়িয়া ইউনিয়নের ভূষিরভিটা গ্রামের গত এক সপ্তাহে ১১২টি পরিবার গৃহহীন হয়ে পড়েছে। এছাড়াও ইতোপূর্বে প্রায় সাড়ে ৩শথ ঘরবাড়ি ও আবাদি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। নদী ভাঙনে ঘরবাড়ি হারিয়ে পরিবারগুলো নিঃস্ব অবস্থায় বন্যা নিয়ন্ত্রন বঁাধ এবং বিভিন্ন উঁচু স্থানে আশ্রয় নিয়ে মানবেতর দিন যাপন করছে। 
উলে­খ্য, গত বন্যায় পানির তীব্র স্রোতে এ গ্রামে নতুন করে ভাঙন শুর“ হয়। গত বছর বালাসী থেকে বাহাদুরাবাদঘাট পর্যন্ত বিআইডাবি­উটিএথর উদ্যোগে নৌ চ্যানেল স্বাভাবিক করতে ব্রহ্মপুত্রে ড্রেজিং করায় বন্যার পানিতে ওই এলাকায় তীব্র স্রোতের সৃষ্টি হলে তখন থেকেই নদী ভাঙন ব্যাপক আকার ধারণ করে। স্থানীয় লোকজন বিভিন্ন সময়ে ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাছে আবেদন জানালেও কোন প্রতিকার পায়নি। 
এব্যাপারে গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মোখলেছুর রহমান জানান, (বিআইডবি­উটিএ) ব্রহ্মপুত্রের নৌ চ্যানেল স্বাভাবিক রাখতে ওই পয়েন্টে পুনঃ খননের লক্ষ্যে ড্রেজিং করায় এ এলাকায় পানির স্রোত বেড়ে গেছে। তারা পুনঃখনন কাজে আপত্তি করে নদী পাড় থেকে ৫শথ মিটার দুরে যেন ড্রেজিং করা হয়। কিন্তু তাদের কথা শোনা হয়নি। ফলে এ ভাঙন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। তিনি বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ড পক্ষ থেকে এ ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করবে বলে তিনি উলে­খ করেন। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

MKRdezign

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget