সোনারগাঁয়ে টাকার বিনিময়ে যুবদলের কমিটি গঠনের অভিযোগ




সোনারগাঁ প্রতিনিধি : বিগত সময়ে আন্দোলন সংগ্রামে রাজপথে যারা ডজনে ডজনে মামলার আসামী ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে তাদের বাদ দিয়েই কমিটি করতে যাচ্ছে সোনারগাঁ উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক শহিদুর রহমান স্বপন। এমনটি অভিযোগ করেছেন একাধিক মামলার আসামী ও নির্যাতিত যুবদল কর্মীরা।
একাধিক সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি সময়ে জেলা যুবদলের অধিনে সোনারগাঁও উপজেলা আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। মামলার হামলার শিকার ও নির্যাতিত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে সোনারগাঁ উপজেলায় আহবায়ক হিসেবে শহিদুর রহমান রহমান স্বপন এর নাম ঘোষণা করা হয়। অথচ বিগত সময়ে আন্দোলন সংগ্রামে তার দৃশ্যমান কোন কর্মকান্ড নেই। মাঠ পর্যায়ের কর্মীরাও তাকে ভালোভাবে চিনেন না। যুবদল কর্মীদের অভিযোগ জেলা যুবদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কে ম্যানেজ করে শহিদুর রহমান স্বপন সোনারগাঁও উপজেলার আহবায়ক নির্বাচিত হন । 

শহিদুর রহমান স্বপন তার দলীয় পদ পাওয়ার পর আহ্বায়ক কমিটিকে পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে রূপান্তরিত করার জন্য পয়সাওয়ালা নেতাকর্মীদেরকে ডেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ নিচ্ছেন কমিটিতে নাম দেওয়ার জন্য। শহিদুর রহমান স্বপন সোনারগাঁও উপজেলা বি এন পির সাধারণ সম্পাদক আজহারুল ইসলাম মান্নানের লোক হওয়ার জন্য তাদের সাথে যে সমস্ত নেতাকর্মীদের অনেক টাকা পয়সা  এবং সুসম্পর্ক থাকায় অযোগ্য নেতাকর্মী দিয়ে সোনারগাঁও উপজেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হবে বলে জানাচ্ছেন নিরীহ  ও  পদ বঞ্চিত  নেতাকর্মীরা। সারা জীবন যারা রাজপথে থেকে আন্দোলন সংগ্রাম করেছেন তাদেরকে বাদ দিয়ে সোনারগাঁ উপজেলার কমিটি করছেন বলে অভিযোগ করছেন নিরীহ এবং পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা । 

যুবদলের একাধিক সূত্র নাম না প্রকাশ করার শর্তে জানান, সোনারগাঁ  উপজেলা জাতীয়বাদী যুবদল প্রকৃত ব্যক্তিদের কাছে নেই। এটি সেন্ডিকেট মার্কা হয়ে গেছে। এটি একটি দলের জন্য নি:সন্দেহে দুর্ভাগ্যজনক। এছাড়াও অদৃশ্য শক্তির ইশারায় এ ধরনের কমিটি গঠন একটি দলকে দুর্বল করার জন্য যথেষ্ট। তারা জোর দাবী জানান অবিলম্বে ত্যাগী ও নির্যাতিতরা দলের সর্বোচ্চ দায়িত্বে আসলে দল ও দেশ উপকৃত হবে এবং ভবিষ্যতে ত্যাগীরা আন্দোলন সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়বে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

MKRdezign

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget