নানা কর্মসূচী মধ্যো দিয়ে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা ৪৫ তম ১৫ আগস্ট পালিত

 

জিহাদ হক্কানী

শোকাবহ ১৫ আগষ্ট। জাতীয় শোক দিবস। বাঙালি জাতির শোকের দিন। স্বাধীনতার স্থপতি,হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙালী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার (১৫ আগস্ট) সুন্দরগঞ্জ উপজেলা সর্বানন্দ ইউনিয়ন সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদ সভাপতি শাহিন আলম এর তত্ত্বাবধানে সর্বনন্দ ইউনিয়ন সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদ সহ আওয়ামীলীগ ও সকল অঙ্গসংগঠনের আয়োজনে ময়েজ মিয়ার, নতুন হাট, আওয়ামীলীগ পার্টি অফিসে জাতীয় ও কালো পতাকা উত্তোলন,বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্প মাল্য অর্পণ, ১মিনিট নিরবতা পালন, শোক র‌্যালী,আলোচনা সভা,স্বরণ সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।


শোক সভায় সমাজ সেবক ও সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদের নেতা শাহিন আলম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবায়নে শোককে শক্তিতে রূপান্তর করবো। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর বঙ্গবন্ধু একটি বিদ্ধস্থ দেশের দায়িত্বভার গ্রহন করলেন। দেশ যখন পূনর্গঠনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল ঠিক তখনই স্বাধীনতা বিরোধী আন্তর্জাতিক চক্রান্তকারিরা, যারা ওই সময় আমাদের স্বাধীনতাকে সমর্থন করেনি সম্মিলিত এবং ঐক্যবদ্ধভাবে আমাদের প্রিয়নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করে। তারা ভেবেছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্যদিয়ে আমাদের বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে বিলিন করে দেয়া যাবে। কিন্তু তার কন্য জননেত্রী শেখ হাসিনা ঐ সকল চক্রান্তকারীদের কালো স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে দেয়নি।


তিনি আরও বলেন, আজ আমরা এক দিকে যেমন শোকাহত তেমনি অন্যদিকে আমরা সৌভাগ্যবান যে সেদিন ১৫ আগষ্টের কাল রাত্রিতে বঙ্গবন্ধু কন্য জননেত্রী শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বেঁচে গিয়েছিল। এবং বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর দীর্ঘ চড়াই-উৎরাইয়ের মধ্যে রাষ্ট্রিয় ক্ষমতা দখল করে তারা সকলে ভোগবিলাসে ব্যস্ত ছিল, তারা আন্তর্জাতিক চক্রান্তকারিদের লেজুড় হিসেবে কাজ করেছিল। আজকে যখন আমাদের প্রিয় নেত্রী রাষ্ট্রিয় ক্ষমতায় এসেছে আজকে জাতির জনকের স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ শুরু করেছেন তিনি, নেত্রীর সাথে আমরা সকলেই কাজ শুরু করেছি, আজকে জননেত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মান করে বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা আমরা বাস্তবায়ন করেই এই শোককে শক্তিতে রূপান্তর করতে সক্ষম হবো এবং আগামি প্রজন্মের জন্য এক সুন্দর বাংলাদেশ বিনির্মানে আমরা সকলেই জাতির জনক কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালি করে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে সক্ষম হবো।


উক্ত অনুষ্ঠানে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদ শাহিন আলম এর সভাপতিত্বে জাতীয় ও কালোপতাকা উত্তোলন ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করার পর শোক র‌্যালী সর্বান্দ ইউনিয়ন এর ময়েজ মিয়ার নতুন হাট বেশ কিছু জায়গা থেকে বের হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে সর্বান্দ ইউনিয়ন রামভদ্র উচ্চ বিদ্যালয় এসে আলোচনা সভায় মিলিত হয়। উক্ত র‌্যালী ও আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন।


শাহীন আলম,সভাপতি সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদ,

সহ- সভাপতি আঃ রাজ্জাক তরফদার,

আসাদুজ্জামান জুয়েল,সাধারণ সম্পাদক,সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদ।


নাহিদ হাসান,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক,

জি এম সুমন,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক,সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদ।


রবিউল ইসলাম খোকন,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক,

সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদ।

সুলতান মাহমুদ মবিন,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক,সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদ,

মশিউর রহমান,শিপন

আবু বকর সিদ্দিক রিপন,যুগ্ম সাধারণ

শিপন খান,সাংগঠনিক সম্পাদক,


সুশান্ত চন্দ্র সরকার,সাংগঠনিক সম্পাদক,সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদ

সম্পাদক,সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদ।


নাইম হাসান নয়ন,প্রচার সম্পাদক,সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদ।


আরিফুল ইসলাম রাসেল,সাবেক সাধারণ সম্পাদক,বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, ৬ নং ইউ.পি

আশিকুর রহমান আদনান,সভাপতি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, ৬ নং ইউ.পি

শাহানুর রহমান সুমন,সহ সভাপতি,বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, ৬ নং ইউ.পি

চাঁন মিয়া,সভাপতি,বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ,৬ নং ইউ.পি,প্রমুখ।



মাদ্রাসাসহবিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

MKRdezign

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget