যে কারণে ঢাকা উত্তরের ২২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হিসেবে জনপ্রিয় সাজ্জাদ চিশতি।সোনারগাঁও সময়


সোনারগাঁও সময় (রুবেল)ঃ এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ’। ‘আসুন বদলে দেই রামপুরাকে’ এই স্লোগানকে সামনে রেখেই নির্বাচনী প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন সাজ্জাদ হোসেন চিশতী। আওয়ামী পরিবারের সন্তান সাজ্জাদ হোসেন চিশতী। তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা, প্রিন্সিপাল মরহুম আবু তাহের ভূঁইয়া। তিনি ছিলেন ফেনী কলেজের ভিপি, ফেনী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি, ফেনী জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি, স্বাধীন বাংলাদেশ ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ ফেনী জেলার আহ্বায়ক, ফেনী জেলা জাসদ (ইনু) আহ্বায়ক, নতুন প্রজন্ম পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি, ঢাকার ফেনী গুণীজন ও মুক্তিযোদ্ধা মূল্যায়ন পরিষদের সভাপতি, সাংবাদিক, কলামিস্ট, সমাজসেবক ও শিক্ষাবিদ। পিতার অনুপ্রেরণায় হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি শতাব্দীর মহানায়ক, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সৈনিক হিসেবে রাজনীতি জীবন শুরু করেন। সাজ্জাদ হোসেন চিশতী রাজনৈতিকভাবে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা, সাবেক ৩২নং ওয়ার্ড, মতিঝিল থানা ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন। সাবেক সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক-বঙ্গবন্ধু প্রজন্ম লীগ কেন্দ্রীয় কমিটি, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটি, সহসভাপতি ফুটবল সাপোর্টাস ফোরাম, উপদেষ্টা, শহীদ নূর হোসেন সংসদ, আহ্বায়ক, বাংলাদেশ মানবাধিকার উন্নয়ন কমিশন, ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ)।

সাংবাদিকদের সংগঠন বিএফইউজে ও ডিইউজের সদস্য (আওয়ামী লীগপন্থী), যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশন, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ পরিষদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক, নিউজ পেপার কমার্শিয়াল অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, সাবেক উপদেষ্টা, ইয়ুথ জার্নালিস্ট ফোরাম বাংলাদেশ। উপদেষ্টা, বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্মৃতি পাঠাগার ও শিশু-কিশোর কল্যাণকণ্ঠ ও যাযাদি ফ্রেন্ডস ফোরামের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

পেশাগত জীবনে সাজ্জাদ হোসেন চিশতী বর্তমানে দৈনিক স্বদেশ প্রতিদিনে যুগ্ম সম্পাদক হিসেবে কর্মরত। এ ছাড়াও দ্য ডেইলি অবজারভার, দ্য ডেইলি পিপলস টাইম, দৈনিক মানবকণ্ঠ, দৈনিক বর্তমান, দৈনিক যুগান্তর, দৈনিক যায়যায়দিন, দৈনিক আজকালের খবরসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন।

জানতে চাইলে সাজ্জাদ হোসেন চিশতী বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার রূপদানকারী, ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা, মাদার অব হিউম্যানিটি, বিশ্বনেত্রী, বিশ্বের অন্যতম প্রভাবশালী প্রধানমন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী, দেশরত্ন, গণতন্ত্রের মানসকন্যা, জননেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শে সুখী, সমৃদ্ধশালী, দারিদ্র্যমুক্ত ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে একজন নগণ্য কর্মী হিসেবে কাজ করে যাওয়াই আমার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

তিনি বলেন, সব ধরনের সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজি রোধে আগামী দিনগুলোতে কাজ করে যেতে চাই, ওয়ার্ডবাসীকে সঙ্গে নিয়ে ব্যক্তি, পরিবার তথা সমাজ ধ্বংসকারী সর্বনাশা মাদকের বিরুদ্ধে দৃঢ়তার সঙ্গে সামাজিক আন্দোলনের রূপ দিতে চাই। সব নাগরিক সমস্যা ও ভোগান্তির অবসান ঘটিয়ে রামপুরাকে গড়ে তুলতে চাই একবিংশ শতাব্দীর সেরা বসবাসযোগ্য ওয়ার্ড হিসেবে।

Marcadores:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

MKRdezign

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget