সোনারগাঁয়ে ইমামকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলায় দিদারুল ইসলাম নামে এক মসজিদের ইমামকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে নিহতের বড় ভাই মিজানুর রহমান বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।
সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান মনির জানান, উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের মল্লিকেরপাড়া এলাকায় বায়তুল জালাল জামে মসজিদের ইমাম দিদারুল ইসলামকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় তার বড় ভাই মিজানুর রহমান বাদি হয়ে থানায় মামলা করেছেন। এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
এদিকে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি জানান, খুনিরা ইমামের কক্ষের পুরাতন তালা খুলে নতুন তালা লাগিয়ে গেছে। এতে মনে হচ্ছে কোন একটি চক্র উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবে ইমামকে খুন করেছে। ইমামের বাড়ি খুলনার তেরখাদা উপজেলায়। তিনি বেশিদিন হয়নি সোনারগাঁয়ে এসেছেন। এর মধ্যে ৭দিন আবার ঈদের ছুটিতে বাড়িতে ছিলেন। আমরা সব কিছু খতিয়ে দেখছি।
প্রসঙ্গত, সোনারগাঁয়ের মল্লিকেরপাড়া এলাকায় বায়তুল জালাল জামে মসজিদের ইমাম দিদারুল ইসলামকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা গলাকেটে হত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার ভোরে মুসল্লিরা ফজরের নামাজ পড়তে এসে মসজিদের হুজরাখানায় ইমামের মাথা বিচ্ছিন্ন লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। নিহত দিদারুল ইসলাম খুলনা জেলার তেরখাদা উপজেলার রাজাপুর গ্রামের মৃত আফতাব উদ্দিন ফরাজীর ছেলে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

merrymoonmary থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget