সোনারগাঁয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষন থানায় অভিযোগ

সোনারগাঁয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিতে এক কিশোরীকে ধর্ষন করার অভিযোগ উঠেছে এক যুবকের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ওই কিশোরী বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগে কিশোরী উল্লেথ করেন, উপজেলার সাদিপুর ইউপির বাইশটেকী এলাকার আমির হোসেনের ছেলে  অন্তর (২১) দীর্ঘ দিন যাবৎ ওই কিশোরীকে স্কুলে যাওয়ার পথে ইভটিজিং করতো এবং বিভিন্ন মাধ্যমে প্রেমের প্রস্তাব দিতো। কিশোরীটির পিতা একটি প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তা প্রহরী ও মা গার্মেন্ট কর্মী হওয়ায় কিশোরীটি বাধ্য হয়ে লেখাপড়া বন্ধ করে দেয়। পরবর্তীতে অধিকাংশ সময়ে কিশোরীর পিতা মাতা বাড়িতে না থাকার সুযোগে বখাটে অন্তর কিশোরীকে নানা ভাবে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে কিশোরীটি অন্তরের সাথে মোবাইল ফোনে কথাবার্তা চলতে থাকে। গত বছরের মে ২৮ তারিখে কিশোরীর বাবা-মা বাড়িতে না থাকার সুযোগে রাত আনুমানিক ১১ টার দিকে অন্তর কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে এবং এই ঘটনা কারও কাছে না বলতে এমনকি নিজের পিতা মাতাকেও জানাতে নিষেধ করে।
এ ঘটনার দীর্ঘ ১ বছর পার হয়ে গেলেও কিশোরীকে বিয়ে করতে রাজি হয়নি বখাটে অন্তর। অবশেষে পারিবারিক ভাবে কিশোরীর বাবা অন্তরের পরিবারকে জানালে তারা দীর্ঘ দিন যাবৎ মিমাংসার কথা বলে অবশেষে কিশোরীর অসহায় পিতা মাতাকে বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি যাতে না করে সেজন্য প্রান নাশের হুমকি প্রদান করে। এ ছাড়া কিশোরীটি থানায় অভিযোগ দেয়ায় অন্তরের পরিবার থানায় পাল্টা মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে পুলিশ দিয়ে তার পরিবারকে হয়রানী করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
এ ব্যাপারে সোনারগাঁ ওসি তদন্ত হেলালউদ্দিন জানান, কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় মামলা নেয়া হয়েছে। ধর্ষককে ধরতে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

merrymoonmary থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget