সোনারগাঁয়ে প্রি-পেইড মিটার লাগাতে বাধা দেওয়ায় গ্রাহকদের বিরুদ্বে মামলা,গ্রেফতার -১



নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার সনমান্দি ইউনিয়নের চরলাল গ্রামে প্রি-পেইড মিটার লাগাতে বাধা দেওয়ায় গ্রাহকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগিরা। তবেপল্লী সমিতি বলেছে তাদের লোকজনদের মারধর ও মালামাল ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলায় এজাহারে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি উল্লেখ করেনসোমবার (২৪ জুন) সকালে বিদ্যুৎ অফিস কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী লাইনম্যান মোঃ রাহমাতুল্লাহমোঃ আজগর আলীসহ ১২ বিদ্যুতের শ্রমিক মিটার প্র্রতিস্থাপনের জন্য ২০০ প্রিপেইড মিটার নিয়ে উপজেলার সনমান্দি ইউনিয়নের চরলাল গ্রামে যাওয়ার পথে বাংলাবাজার গিয়ে তাদের ব্যবহৃত গাডী থেকে বৈদ্যুতিক মিটার নামানোর পর স্থানীয় লোকজন ওই এলাকায় প্রিপেইড মিটার সংযোগ দিতে বাধা প্রয়োগ করেন।

একপর্যায়ে লাইনম্যান সহ তাদের সবাইকে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে পিটিয়ে আহত ও প্রায় ৫ লাখ টাকার প্রি-পেড মিটার ও অন্যান্য বৈদ্যুতিক যন্ত্রাংশ ভাঙচুর করে।

এঘটনায় ১১ জনের নাম উল্লেখ করে ও আরো ১৫/২০ কে অজ্ঞাত দেখিয়ে নারায়ণগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি -১ এর সরকারি জেনারেল ম্যানেজার সুজন কুমার সরকার বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

এদিকেমামলার আসামীরা অভিযোগ করেন গতকাল শাখাওয়াতের দোকানে পল্লী বিদ্যুতের লোকজন প্রি-পেইড মিটার লাগাতে যায়। এসময় শাখাওয়াত বাঁধা দেয়ায় তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয় এক পর্যায়ে উভয়ের মধ্যে হাতাহাতি হয়। এর জের ধরে সোমবার বিকালে সোনারগাঁ পল্লী বিদ্যুতের পক্ষ থেকে একটি মামলা দায়ের করা হয়। সে মামলায় শাখাওয়াতকে গতকাল রাতে পুলিশ গ্রেফতার করে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

MKRdezign

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget