ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচে আবারো সেই আলিম দার!!

সৌম্য সরকারের বদলে ওপেনিং করতে নেমে আফগানিস্তানের বিপক্ষে বেশ ভালোই খেলছিলেন লিটন কমার দাস। কিন্তু বাধ সাধে আম্পায়ারের বিতর্কিত এক সিদ্ধান্ত। আফগান স্পিনার মুজিব-উর রহমানকে অফসাইডে খেলতে গিয়ে হযরতুল্লাহ শাহিদির হাতে বল তুলে দেন লিটন।

শহিদির এই ক্যাচ নিয়ে বিতর্ক। মাঠ আম্পায়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি। সিদ্ধান্ত পাঠিয়ে দেওয়া হয় টিভি আম্পায়ারের কাছে। পরে রিপ্লেতে দেখা যায়, শাহিদির হাতে জমা পড়ার আগে বলটি মাটি স্পর্শ করেছে। বেনিফিট অব ডাউটের সিদ্ধান্ত ব্যাটসম্যানের পক্ষেই যাওয়ার কথা। কিন্তু বিতর্কিতভাবে আউটের সিদ্ধান্ত দেয়া হয়।

লিটনের বিরুদ্ধে বিতর্কিত সিদ্ধান্তটি দিয়েছিলেন আলিম দার। বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচে টিভি আম্পায়ারের দায়িত্বে ছিলেন এই পাকিস্তানি আম্পায়ার। আলিম দারকে নিয়ে এর আগেও বিতর্ক হয়েছে।

২০১৫ সালের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালেও বাংলাদেশের বিপক্ষে বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। রুবেল হোসেনের বলে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের হাতে ক্যাচ দিয়েছিলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা। কিন্তু সেই ম্যাচে ফিল্ড আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করা আলিম দার ‘নো বল’ ডাকেন।

রিপ্লেতে পরিষ্কার দেখা যায়, বল রোহিতের কোমড়ের নিচেই ছিল। দারের সেই সিদ্ধান্তটি তখন ক্রিকেটবিশ্বে ঝড় তুলে দিয়েছিল। ‘জীবন’ পাওয়া রোহিত সেঞ্চুরি করে বাংলাদেশকে ব্যাকফুটে ফেলে দিয়েছিলেন। বাংলাদেশের বহু সমর্থক এখনো মনে করেন, আলিম দারের সেই সিদ্ধান্তটিই হারিয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশকে।
বিতর্কিত দারের মুখে কিন্তু আবারও পড়তে হচ্ছে বাংলাদেশকে। চলতি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পরবর্তী ম্যাচ ভারতের বিপক্ষে। আগামী ২ জুন কোহলিদের মুখোমুখি হবে মাশরাফির দল। ম্যাচ প্রতি আম্পায়ারদের জন্য আইসিসির সূচিতে বলা আছে, ওই ম্যাচেও টিভি আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করবেন আলিম দার।

দারের কাছ থেকে এবার নিশ্চয়ই বিতর্কিত সিদ্ধান্ত চাইবেনা বাংলাদেশি সমর্থকরা।



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

[blogger]

MKRdezign

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget